টেকনাফের ১০২ ইয়াবা ব্যবসায়ীর আত্মসমর্পণ

কক্সবাজারের টেকনাফে ১০২ মাদক ব্যবসায়ী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের হাত থেকে ফুল নিয়ে আত্মসমর্পণ করেছেন।

শনিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে টেকনাফ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এক অনুষ্ঠানে আত্মসমর্পণ করেন তারা।

জানা গেছে, আত্মসমর্পণের জন্য প্রস্তুতি নেওয়া এরকম শতাধিক মাদক ব্যবসায়ীকে শুক্রবার পুলিশের সেফহোম থেকে টেকনাফে নিয়ে আসা হয়েছে। যাদের মধ্যে ২০ থেকে ৩০ জন শীর্ষ ইয়াবা ব্যবসায়ীসহ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত রয়েছেন ৫৫ থেকে ৬০ জন।

এদের মধ্যে বহুল আলোচিত সাবেক সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির ভাই আবদুর শুক্কুরসহ অন্তত ১০ জন নিকটাত্মীয় রয়েছেন।

আত্মসমর্পণকারীদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলেন- সাবেক সংসদ সদস্য আওয়ামী লীগ নেতা আবদুর রহমান বদির ভাই- মাদক ব্যবসায়ী আবদুর শুক্কুর, আমিনুর রহমান, শফিকুল ইসলাম, বদির ভাগিনা মো. সাহেদ রহমান নিপু, বিয়াই সাহেদ কামাল ও খালাতো ভাই মন মন সেন।

এ সময় মাদক ব্যবসায়ীরা তিন লাখ ৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ৩০টি দেশীয় এলজি ও ৭০টি তাজা কার্তুজ জমা দেন। আত্মসমর্পণকারীরা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত ও চিহ্নিত ইয়াবা ব্যবসায়ী। তারা স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে আত্মসমর্পণ করেছেন।

আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মো. জাবেদ পাটোয়ারী, বিশেষ অতিথি শাহীন আকতার, সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, আশেক উল্লাহ রফিক, মো. জাফর আলম (এমপি), চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক, জেলা প্রশাসক মে. কামাল হোসেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব মোস্তফা কামাল উদ্দিন, বিজিবির রিজিউন কমান্ডার বিগ্রেডিয়ার জেনারেল সাজেদুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা প্রমুখ।