ঢাবিতে মাস্টার্স পরীক্ষা শেষে ১৫ দিনের মধ্যে হল ছাড়তে হবে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মাস্টার্স পরীক্ষা শেষ হওয়ার ১৫ দিনের মধ্যে সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীকে হল ত্যাগ করতে হবে এবং কোনোক্রমেই হলে অবস্থান করতে পারবে না বলে প্রভোস্ট কমিটির সভায় সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।

বুধবার রাতে উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে প্রভোস্ট কমিটির এই সভা হয় বলে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

পাশাপাশি আবাসন সঙ্কট মেটাতে হলে ‘বাংক বেড’ স্থাপনের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের জন্য একটি কমিটি করা হয়েছে

সেখানে বলা হয়, “হল প্রশাসন প্রথম বর্ষে ভর্তি শিক্ষার্থীদের মেধার ভিত্তিতে শূন্য আসনে সিট বরাদ্দ করবে এবং কোনো শিক্ষার্থী হল প্রশাসনের অনুমতি ছাড়া হলে উঠতে ও অবস্থান করতে পারবে না “

কেউ এর ব্যত্যয় ঘটালে তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও হুঁশিয়ার করা হয়েছে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৭টি হলে শিক্ষার্থী আছেন ধারণক্ষমতার দ্বিগুণেরও বেশি। আবাসন সঙ্কটের কারণে প্রতিটি হলেই সৃষ্টি হয়েছে ‘গণরুমের’, যেখানে মেঝেতে টানা বিছানা পেতে প্রথম বর্ষের নবীন শিক্ষার্থীদের গাদাগাদি করে থাকতে হয়। কারা এসব কক্ষে থাকবে তার নিয়ন্ত্রণ থাকে ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠনের নেতাদের হাতে।

আবার বিশ্ববিদ্যালয়ের লেখাপড়া শেষ হয়ে যাওয়ার পরও অনেক শিক্ষার্থী দীর্ঘদিন হলে থেকে চাকরি খোঁজেন। ফলে কাগজে কলমে তাদের সিট না থাকলেও বাস্তবে আসন খালি হয় না।

গণরুম সঙ্কটের সমাধানের দাবিতে গত ১ সেপ্টেম্বর থেকে কবি জসীমউদ্দীন হলের ২০৮ নম্বর কক্ষের গণরুমে গিয়ে উঠেছেন ডাকসুর সদস্য তানভীর হাসান সৈকত।

বুয়েট ছাত্র আবরার হত্যার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানানোর পাশাপাশি হত্যাকাণ্ডে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িতদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়ারও দাবি জানানো হয়েছে প্রভোস্ট কমিটির সভায়। 

Leave a Reply

shares