বাগআঁচড়ায় মেয়াদোত্তীর্ণ কীটনাশক রাখায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা

এবিএস রনি, শার্শা (যশোর) প্রতিনিধি:

যশোর জেলার শার্শার বাগআঁচড়া বাজারে বিভিন্ন কীট নাশক ও বীজের দোকানে অভিযান চালিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। এ সময় ২ হাজার টাকা আর্থিক জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সন্ধ্যায় শার্শা উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মৌসুমী জেরিন কান্তার পরিচালনায় বাগআঁচড়া বাজারের বীজ ও কীটনাশকের দোকানে অভিযান চালানো হয়।
এই অভিযানে এস এইচ ট্রেডার্স নামের ব্যবসা প্রতিষ্টানকে মেয়াদোত্তীর্ণ সার ও কীটনাশক রাখার দায়ে ২ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এস এইচ ট্রেডার্স’র গোডাউন পরিদর্শন করলে দেখা যায় সেখানে অনেক মেয়াদোত্তীর্ণ কীটনাশক ও নিম্ন মানের সার ও বীজ পাওয়া যায়।
এসব কীটনাশক ও নিম্মমানের বীজ বিক্রি করে সাধারণ খেটে খাওয়া কৃষকদের কে চরম ক্ষতিগ্রস্থ করা হচ্ছে।
শার্শা উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মৌসুমী জেরিন কান্তা সংবাদিকদের জানান, আমরা বিভিন্ন দোকান থেকে বীজ ও কিটনাশক জব্দ করে নিয়ে যাচ্ছি সেগুলো ল্যাব ট্রেস্ট করার জন্য আসলে পন্য গুলোর গুণগত মান ঠিক আছে কি জানার জন্য। এবং এস এইচ ট্রেডার্সে ২০ বোতল মেয়াদোর্ত্তীন মাল থাকায় এস এইচ ট্রেডার্সের স্বত্বাধীকারী শামিম হোসেনকে ২ হাজার টাকা জরিমান করা হয়েছে।
এ বিষয়ে এস এইচ ট্রেডার্সের স্বত্বাধীকারী শামিম হোসনের কাছে মুঠো ফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন, হ্যা আমার দোকানে মেয়াদোত্তীর্ণ কীটনাশক পাওয়া গেছে। আসলে সার এবং কীটনাশকের দোকানে মেয়াদ উত্তীর্ণ মাল থাকতেই পারে। এটা কোন বিষয় না। এমন কি ২শ বোতল মেয়াদউত্তীর্ণ কীটনাশক থাকলেও এটা বড় ধরণের কোন অন্যায় না। 
এমন কথায় হতভঙ্গ সাধারণ কৃষকরা। তাই কৃষকরা দাবি করেছে এমন ঘটনা যেনো আর না ঘটে। এই জন্য তারা ঊদ্ধতনো প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের আশু হস্তক্ষেপ করছেন।