বিশ্ব ইজতেমা তিন দিনের পরিবর্তে চার দিন হবে

এবারের বিশ্ব ইজতেমা তিন দিনের পরিবর্তে চার দিন হবে। আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ধর্ম মন্ত্রণালয়ে তাবলিগের দুই পক্ষের সঙ্গে বৈঠকের পর ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আবদুল্লাহ এ ঘোষণা দেন।

তিনি বলেছেন, বিশ্ব ইজতেমা এক দিন বাড়িয়ে চার দিন করা হয়েছে। প্রথম দুই দিন মাওলানা জোবায়ের ও পরের দুই দিন সৈয়দ ওয়াসিফুল ইসলামের ব্যবস্থাপনায় ইজতেমা হবে।

আখেরি মোনাজাত কে পরিচালনা করবেন, সে সিদ্ধান্ত তাবলিগের মুরুব্বিরা ঠিক করবেন বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

কয়েক লাখ লোকের জমায়েতের কারণে বিশ্ব ইজতেমাকে মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম সম্মিলন বলা হয়। প্রতিবছর জানুয়ারি মাসে টঙ্গীতে বিশ্ব ইজতেমার আয়োজন হলেও তাবলিগ জামাতের নেতৃত্বের দ্বন্দ্বে এবার তা স্থগিত হয়ে যায়।

এই পরিস্থিতিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল সম্প্রতি দুই পক্ষের ‘মুরুব্বিদের’ নিয়ে বৈঠকে বসেন। পরদিন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ঘোষণা দেন, এবার ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে তিন দিন ইজতেমা হবে।

সেই সিদ্ধান্ত বদলে এখন তাবলিগের বিবদমান দুই পক্ষের তত্ত্বাবধানে দুই দিন করে চারদিন ইজতেমা ঠিক হল।

ভারতের মাওলানা সাদ কান্ধলভি এবার ইজতেমায় আসছেন না বলে জানান প্রতিমন্ত্রী আবদুল্লাহ।

“সাদ সাহেব আসবেন না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন,” বলেন তিনি।

উপমহাদেশে সুন্নি মতাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় সংঘ তাবলিগ জামাতের মূলকেন্দ্র ভারতের দিল্লিতে। মাওলানা সাদের দাদা ভারতের ইসলামি পণ্ডিত ইলিয়াছ কান্ধলভি ১৯২০ এর দশকে তাবলিগ জামাত নামের এই সংস্কারবাদী আন্দোলনের সূচনা করেন।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলছেন, ইজতেমায় যে কোনো ধরনের গোলমাল না হয় সেজন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাশাপাশি সামরিক বাহিনীর সদস্যদেরও মোতায়েন করা হতে পারে।

বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে অতিথিরা যেন আসতে পারেন, ভিসা সংক্রান্ত কোনো সমস্যা যাতে না হয় সেজন্য সংশ্লিষ্ট সব দপ্তরে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।