ভারতের কাছে ৫ রানে হেরে যুবা টাইগারদের স্বপ্নভঙ্গ

এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি) আয়োজিত যুব এশিয়া কাপের ফাইনালে জয়ের একেবারে দ্বারপ্রান্তে এসেও ভারতের কাছে মাত্র ৫ রানের হার মেনে নিতে হলো যুবাদের। ফলে রানার্সআপ হয়েই শান্ত থাকতে হলো টাইগার জুনিয়রদের।

শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) শ্রীলংকার প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নামে ভারত। কিন্তু বাংলাদেশি যুবাদের বোলিংয়ে দিশেহারা হয়ে মাত্র ১০৬ রানে অলআউট হয়ে যায় ভারতের যুবারা। কিন্তু এ রান তাড়া করতে গিয়ে ১০১ রানেই অলআউট হয়ে যায় বাংলাদেশের যুবারা।

শুরুতে বাংলাদেশের যুবাদের অবস্থা অনেকটা করুণ হয়। ভারতীয় বোলারদের চাপে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে আকবর আলীরা।

সাকিব-মৃত্যুঞ্জয়-রাকিবুল-শাহীন ও শামীমের দুর্দান্ত বোলিংয়ে ৫৩ রানে ভারতের পাঁচ উইকেটের পতন ঘটেছিল। ঠিক এর থেকেও কমে রানে টাইগার যুবারা হারায় পাঁচ উইকেট। ৪০ রানে যুবাদের টপ অর্ডারে ধস নামে।

১৬ রানেই হারায় ৪ উইকেট। দুই ওপেনার তানজিদ হাসান ও পারভেজ হোসেন ইমন উইকেটে কেবল আসলেন আর গেলেন। কোনো রান না করেই তানজিদ ফিরে যান আকাশ সিংজের বলে এলবিডাব্লিওর শিকার হয়ে। আর কেবল ৫ রান করে বরুন লাভান্ডের বলে বিদ্যাধর পাতিলের কাছে ক্যাচ তুলে দেন ইমন।

তিনে-চারে ও পাঁচে ব্যাট করতে এসে জয়, তৌহিদ ও শাহাদাত কিছুই করতে পারেননি। ভারতের যুবাদের বোলিং তোপে কেবল আসলেন আর গেলেন। ধরে খেলছিলেন সাকিব ও রাকিবুল। কিন্তু শেষ রক্ষা আর হয় নি।

সাকিব ৩৬ বলে ১২ রান করে আউট হলে মূলত ম্যাচ শেষ হয়ে যায়। তাকে ফেরান স্পিনার অথর্ব। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নামেন শাহিন আলম। তিনি কোন রান না করেই আউট হলে জয়ের আনন্দে মেতে উঠেন ভারত।

এর আগে সকাল ১০টায় শুরু হওয়া ম্যাচে টস জিতে ব্যাট করতে নামে ভারত। সাকিব-মৃত্যুঞ্জয়-রাকিবুল ও শামীমের দুর্দান্ত বোলিংয়ে ৩২.৪ ওভারে ১০৬ রান তুলতে সক্ষম হয় ধ্রুভ জুরেলরা। বাংলাদেশের শামিম হোসেন ও মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী তিনটি করে উইকেট শিকার করেন।

Leave a Reply

shares