`মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ হতে ৩৭ হাজার আবেদন

চলতি বছর ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ অডিশনের জন্য রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে ৫ সেপ্টেম্বর থেকে। রেজিস্ট্রেশন করার সুযোগ ছিল ৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। অমিকন এন্টারটেইনমেন্টে সঙ্গে অনুষ্ঠানটির আয়োজক সহযোগী হিসেবে থাকছে এক্সপার্ট ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট।

মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের অডিশন পর্বগুলো ধারণ করা হয়েছে- এটিএন বাংলার ক্যামেরায়। আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর, শুক্রবার থেকে প্রতি শুক্র এবং সোমবার রাত ৮টায় প্রচার করা হবে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৯’।

কর্তৃপক্ষ জানায়, পাঁচ দিনে ৩৭ হাজার ২ শত ৪৩ জন সুন্দরী এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে নিবন্ধন করেন। সেখানে থেকে অডিশনের জন্য ডাক পান ৩০০ জন।

তাদের মধ্য থেকে যাচাই-বাছাই শেষে বর্তমানে টিকে আছেন ৩৫ জন সুন্দরী। সৌন্দর্য, শিক্ষা, বুদ্ধিমত্তাসহ আরও কিছু যোগ্যতার উপর ভিত্তি করে এদের বাছাই করা হয়েছে। তাদের নিয়ে চলছে গ্রুমিং পর্ব।

জানা গেছে, ৩০০ জন প্রতিযোগী থেকে প্রাথমিকভাবে বাছাই হন ৬০ জন সুন্দরী। তাদের বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন দেবাশীষ বিশ্বাস, লুনা ,সুমনা সোমা, রফিকুল ইসলাম র‌্যাফ।

পরবর্তীতে প্রধান তিন বিচারকের কাছে অডিশন শেষে ৬০ জন থেকে সেরা ৩৫ জন বাছাই করা হয়েছে। তাদের নিয়ে শুরু হয়েছে প্রতিযোগিতার মূল পর্ব। প্রধান তিন বিচারক হিসেবে এই আয়োজনে রয়েছেন চিত্রনায়িকা মৌসুমী, চিত্রনায়ক ফেরদৌস ও সৌন্দর্য বিশেষজ্ঞ ফারনাজ আলম।

সেরা ৩৫ জনকে নিয়ে চলছে চলছে গ্রুমিং। উপস্থাপনা, নাচ, গান, অভিনয়, সামাজিকতা, মানবিকতাসহ নানা বিষয়ের উপর জোর দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে প্রতিযোগীদের। সেইসঙ্গে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে গত বছরগুলোতে বিশ্বসুন্দরীর মঞ্চে বাংলাদেশি সুন্দরীদের সীমাবদ্ধতাগুলোকেও।

আয়োজকরা জানিয়েছেন, আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর, বৃহস্পতিবার অডিশনের মাধ্যমে সেরা ৩৫ থেকে ‘টপ টুয়েন্টি’ বাছাই করা হবে। সেই ২০ জন প্রতিযোগী থেকে বের হয়ে আসবেন এবারের মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ। 

Leave a Reply

shares