শার্শায় সাংবাদিক পরিবারের উপর হামলা ও হত্যার হুমকি, আহত ২

যশোরের শার্শার উলাশিতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সাংবাদিকের বাড়িতে হামলা চালিয়েছে উলাশী পূর্বপাড়ার সোহেল ওরফে থুকু।

শার্শা উপজেলার উলাশী গ্রামের পুর্বপাড়ায় দৈনিক আজকালের খবর ও দৈনিক প্রতিদিনের কথার শার্শা উপজেলা প্রতিনিধি নজরুল ইসলাম এর বাড়িতে শুক্রবার সন্ধ্যার এ হামলার ঘটনাটি ঘটে।

আহতরা হলেন সাংবাদিক নজরুল ইসলাম ও তার স্ত্রী সেলিনা খাতুন।

আহত সাংবাদিক নজরুল ইসলাম জানান, ছোট ছেলে সৌরভ হোসেন (৬) প্রতিবেশী সোহেল ওরফে থুকুর ছোট ছেলে রাজেশের (৭) সঙ্গে খেলা করার সময় হাতাহাতি হয়।

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে সোহেল, স্ত্রী তহিদা খাতুন, বড় ছেলে নিরব ও বোন রুকসানা খাতুন অশ্রাব্য ভাষা ব্যবহার করতে থাকে। এসময় অশ্রাব্য ভাষার প্রতিবাদ করলে তারা বাড়ি থেকে লাঠি নিয়ে এসে অতর্কিতভাবে তাদের উপর হামলা করে।

বেধড়ক মারপিট করার এক পর্যায়ে স্ত্রী সেলিনা খাতুন, প্রতিবেশী গোলামের স্ত্রী ফারি খাতুন ও তার মেয়ে অঞ্জলী খাতুন এগিয়ে আসলে তারাও মারপিটের শিকার হয়। তারা চলে যাওয়ার সময় দম্ভোক্তি করে সোহেল গং কুপিয়ে হত্যার হুমকি দেয়।

এছাড়াও অঞ্জলী নাভারণে গেলে তার ভাড়া করা মাস্তান দিয়ে আবারো মারপিট করা হবে বলে সাশিয়ে যায়। তাদের অব্যাহত হুমকির মুখে সাংবাদিক পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় দিন যাপন করছে। ঘটনার পর ইউপি সদস্য তরিকুল ইসলাম মিলন এসে উভয় পক্ষের অভিযোগ শুনেই চলে যান।

প্রতিবেশীরা ভয়ে নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, পূর্বেও সোহেলসহ তার পরিবারের লোকজন তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রায় ৪/৫ জনের বাড়িতে এসে অত্যাচার ও অশ্রাব্য ভাষা ব্যবহার করে। সে এ পাড়ায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে চলেছে। অত্যাচারের হাত থেকে রেহাই পেতে প্রশাসনের সহায়তা চান তারা।

শার্শা থানার ডিউটি অফিসার এসআই কামরুজামান জানান,এ বিষয়ে অভিযোগ গ্রহন করা হয়েছে। আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানান তিনি।