হোটেল থেকে আলোকচিত্রী আনোয়ার হোসেনের লাশ উদ্ধার

শনিবার সকালে পান্থপথের হোটেল ওলিও ড্রিম হেভেনের একটি কক্ষের দরজা ভেঙে আনোয়ার হোসেনের মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

শেরেবাংলা নগর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) তোফাজ্জল হোসেন বলেন, আলোকচিত্রী আনোয়ার হোসেনের জন্ম বাংলাদেশে হলেও বর্তমানে তিনি ফ্রান্সের নাগরিক। বাংলাদেশে একটি আলোকচিত্রী প্রতিযোগিতার বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে আসা আনোয়ার হোসেন গত ২৮ নভেম্বর হোটেল ওলিও ইন্টারন্যাশনালে ওঠেন।

গতকাল শুক্রবার রাত ১০টার দিকে তিনি হোটেলে আসেন। আজ সকালে প্রতিযোগিতামূলক প্রতিষ্ঠানের আয়োজনকারী দলের সদস্যরা ওই হোটেলে আসেন। আনোয়ার হোটেলের যে কক্ষে ছিলেন, সেই কক্ষের দরজায় ধাক্কা দিলেও কোনো সাড়া পাচ্ছিলেন না তাঁরা।

আধা ঘণ্টা ধরে দরজায় ধাক্কা দেওয়ার পরও সাড়া না পাওয়ায় তাঁরা পুলিশ ডাকেন। এরপর পুলিশের উপস্থিতিতে দরজা ভেঙে আনোয়ারের লাশ উদ্ধার করা হয়।

আলোকচিত্রী আনোয়ার হোসেনের জন্ম ১৯৪৮ খ্রিষ্টাব্দের ৬ অক্টোবর পুরোনো ঢাকার আগা নবাব দেউড়িতে। তিনি বাংলাদেশের আন্তর্জাতিকমানের একজন আলোকচিত্রী ও চলচ্চিত্র ভিডিওগ্রাফার।

বর্তমানে প্যারিসে বসবাস করেন। বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে চিত্রগ্রহণে অবদানের জন্য বেশ কয়েকবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন আনোয়ার হোসেন।

সূর্যদিঘল বাড়ি, এমিলির গোয়েন্দা বাহিনী, লালসালু ও অন্যজীবন সিনেমার চিত্রগ্রাহক আনোয়ার হোসেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন পাঁচবার। বলা হয়, বাংলাদেশের আলোকচিত্রীদের পুরো একটি প্রজন্মকে নতুন পথের দিশা দিয়েছে তার কাজ।