গণতন্ত্রের স্বার্থে বিএনপিকে সংসদে যোগদানের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

শনিবার আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের উপদেষ্টা ও কাযনির্বাহী কমিটির যৌথসভার শুরুতে দেওয়া বক্তব্যে তিনি বলেন, “মানুষ জানতেই পেরেছে যে এদের চরিত্রটা কী। এদের চরিত্র শোধরায়নি। বাংলাদেশের জনগণ তাদের প্রত্যাখ্যান করে দিছে।

“তারপরও যে কয়টা সিটে তারা জিতেছে, গণতন্ত্রের স্বার্থে তারা যদি চায়, তাদের পার্লামেন্টে আসা প্রয়োজন।”

গত ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে ২৯৯ আসনের মধ্যে আওয়ামী লীগ পেয়েছে ২৫৭টি আসন, তাদের জোটসঙ্গী জাতীয় পার্টি ২২ আসন পেয়েছে। মাত্র আটটি আসন পেয়েছে জাতীয়ফ্রন্ট,, যার মধ্যে বিএনপির ছয়টি আর হণফোরামের ২টি।

কারচুপির অভিযোগ তুলে ঐক্যফ্রন্ট ভোটের ফল প্রত্যাখ্যান ও পুনঃভোটের দাবি জানিয়ে আসছে। তাদের জয়ী নেতারা সাংসদ হিসেবে শপথও নেননি।

পরাজয়ের জন্য বিএনপিকেই দোষারোপ করে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেন, “বিএনপি নির্বাচনে হেরেছে- এই দোষ তারা কাকে দেবে? এই দোষ তাদের নিজেদেরকেই দিতে হবে।

“কারণ একটি রাজনৈতিক দলের যদি নেতৃত্ব না থাকে, মাথাই না থাকে তাহেল সেই রাজনৈতিক দল কীভাবে নির্বাচনে জেতার কথা চিন্তা করতে পারে?”